জন রকফেলার ও মানুষের ভালো ‍দিক | Inspiring Story of John Rockefeller About Anger


জন রকফেলার ও মানুষের ভালো ‍দিক | Inspiring Story of John Rockefeller About Anger
John D. Rockefeller

মানুষের ভালো ‍দিক

আমেরিকান বড় ব্যবসায়ী এবং জনহিতৈষী বিখ্যাত জন ডি রকফেলারের নেতৃত্বে স্ট্যান্ডার্ড অয়েল ছিল একসময়ের বিশ্বের বড় বড় সংস্থাগুলির একটি। কোনো একসময় কোম্পানীর এক নির্বাহী বা এক্সিকিউটিভ একটি বাজে সিদ্ধান্ত নেন। যার দরুন প্রতিষ্ঠানটির দুই মিলিয়ন ডলার ক্ষয়ক্ষতি হয়। আর তা ছিল ১৮০০ দশকের দিকের দুই মিলিয়ন ডলার যা ছির প্রকৃতপক্ষে একটি বিশাল অংকের অর্থ।

কোম্পানির অংশীদার এডয়ার্ড বেডফোর্ডের রকফেলারের সাথে দেখা করার জন্য পুর্বে সময় নির্ধারন করা ছিল। যখন তিনি রকফেলারের অফিসে ঢুকেন তখন দেখতে পান তার বস একটা কাগজের টুকরো নিয়ে ঝুঁকে নোট লিখায় ব্যস্ত। অবশেষে যখন রকফেলার মুখ তুলে তাকান তখন তিনি বেডফোর্ডকে বললেন, “আমার মনে হয় তুমি আমাদের ক্ষতির কথা শুনেছ? “আমি বিষয়টি নিয়ে ভাবছি”, রকফেলার বলেন “আর বিষয়টি নিয়ে ভ্দ্রলোকের সাথে কথা বলার আগে আমি কিছু নোট তৈরি করেছি।”

বেডফোর্ড টেবিলের দিকে তাকালে যে কাগজের টুকরোয় রকফেলার নোট লিখেছেন তা দেখতে পান। লিখছিলেন। কাগজটি একেবারে উপরের দিকে শিরোনামে লেখা রয়েছে, জনাব __________ এর অনুকুলে আলোচনার ‍প্রসঙ্গ বা পয়ন্টস।” শিরোনামের নীচে দিকে লেখা রয়েছে লোকটির (এক্সেকিউটিভ) ভাল গুণাবলীর একটি দীর্ঘ তালিকা, যার মধ্যে রয়েছে তিনটি সময়ের কথা যখন তার সঠিক সিদ্ধান্তে ভুলের কারণে যে পরিমান কোম্পানীর ক্ষতি হয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশিগুন কোম্পানীর লাভ হয়িছিল।

বেডফোর্ড পরে বলেছিলেন, “আমি কখনেই সেই শিক্ষা ভুলে যাইনি। পরবর্তী বছরগুলিতে, যখনই আমি কারও সম্পর্কে কড়া সমালোচনা করার জন্য প্রলুব্ধ হয়েছি, আমি প্রথমে নিজেকে জোর করে বসিয়ে সুচিন্তিতভাবে যতটা সম্ভব ভাল তার ভালো ‍দিক/প্রস্ঙ্গ গুলির একটি যতটা সম্ভব একটি দৈর্ঘ তালিকা তৈরি করেছি। অবিকার্যভাবে, আমি আমার তালিকা শেষ করার সময়ের মধ্যেই আমি বিষয়টিকে এর প্রকৃত দৃষ্টিকোন থেকে অনুধাবন করতে পারতাম, এবং আমার মেজাজকে/রাগকে নিয়ন্ত্রমে রাখতে সক্ষম হতাম। একজন এক্সেকিউটিভ হিসেবে কতবার যে এই অভ্যাসটি আমাকে সবচেয়ে রাগের মাথায় ক্ষতিকর ভুল সিদ্ধান্ত থেকে আমাকে রক্ষা করেছে তার কোনো হিসেবে নেই।

 

সূত্র: আমেরিকান জিগশ কোম্পানী Bits And Pieces তে ১৯৯৪ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত হয়।

Post a Comment

Previous Post Next Post